নিপুণকে সব সময় পাশে পাওয়ার আশা জায়েদ খানের

অবশেষে টানা তৃতীয় বার জেতার পর সবাইকে নিয়ে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সদস্য তথা শিল্পীদের জন্য কাজ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। সেই সঙ্গে তাঁর আশা, এবারের

প্রতিযোগী নিপুণ আক্তারকে সব সময় পাশে পাবেন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি

পদে জিতেছেন বরেণ্য অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন ও সাধারণ সম্পাদক পদে জিতেছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। এ নিয়ে টানা তিন বার সাধারণ সম্পাদক পদে জিতলেন জায়েদ খান।

এদিকে নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর সাংবাদিকদের মাধ্যমে নিপুণ আক্তারের উদ্দেশে জায়েদ খান বলেন, ‘তাঁর জন্য শুভ কামনা। নারী অভিনেত্রী হিসেবে প্রথমেই

সেক্রেটারি পদে আমার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। প্রতিদ্বন্দ্বিতা বলব না প্রতিযোগিতা। তিনি প্রতিযোগিতা করেছেন, বিরোধী পক্ষ হয়েছেন বলেই তো নির্বাচন হয়েছে। তাঁর জন্য শুভ কামনা।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাঁকে নিয়ে আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই। আশা করি, কোনও কাজে আমাদের সব সময় তিনি পাশে পাবেন। তিনি শিল্পীদের জন্য

কাজ করতে চেয়েছেন। আমরাও শিল্পীদের জন্য কাজ করব। আশা করি, সব সময় তাঁকে আমরা পাশে পাব। এটাই প্রত্যাশা। তাঁর জন্য অনেক শুভ কামনা।’

এ সময় জায়েদ খান বলেন, ‘আমরা মনে করি, কাল থেকে সব এক। সবাই একসঙ্গে মিলেমিশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করব। সবাই সবার পাশে দাঁড়াব।’

এদিকে সভাপতি পদে ইলিয়াস কাঞ্চন পেয়েছেন ১৯১ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মিশা সওদাগর পেয়েছেন ১৪৮ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খান পেয়েছেন ১৭৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী2

নিপুণ আক্তার পেয়েছেন ১৬৩ ভোট। আজ শনিবার ২৯ জানুয়ারি ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে গণমাধ্যমকর্মী ও পদপ্রার্থীদের সামনে নির্বাচনের ফল ঘোষণা শুরু করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা হারুন। তিনি জানান, ভোট বাতিল হয়েছে ১০টি।