কাঞ্চন ভাই অনেক গুণী মানুষ: জায়েদ খান

অবশেষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ১৭তম নির্বাচনে টানা তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। তবে এবার তিনি আগের দুইবারের সভাপতি মিশা সওদাগরকে সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন না। সমিতির নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

এদিকে বিপক্ষের প্যানেল থেকে সভাপতি নির্বাচিত হলেও একসঙ্গে মিলেমিশে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন জায়েদ খান।

আজ শনিবার ২৯ জানুয়ারি সকাল ৬টার দিকে নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা জানান।

এ সময় জায়েদ খান বলেন, এবারের নির্বাচনে আমার জয় পেতে অনেক কষ্ট হয়েছে। শিল্পীরা যাদের ভালো মনে করছেন

তাদেরকেই ভোট দিয়েছেন। আমি নির্বাচিত হয়েছি সবার দোয়ায় এবং শিল্পীদের ভালোবাসায়। যাদের ভোটে আমি নির্বাচিত, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা।

মিশা সওদাগরের হেরে যাওয়া প্রসঙ্গে জায়েদ বলেন, তার সঙ্গে চার বছরের পথচলা, মন খারাপ হয়ে গিয়েছে। তাকে ছাড়া অনেক খারাপ লাগবে। কাজের ক্ষেত্রে অনেক মিস করবো।

নতুন সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকে নিয়ে তিনি বলেন, কাঞ্চন ভাই অনেক গুণী মানুষ, আমাদেরই তো ভাই। উনি দুই মেয়াদে শিল্পী সমিতির উপদেষ্টা হিসেবে আমাদের সঙ্গে ছিলেন।

আসা করছি কাজের মূল্যায়নটা ভালো হবে। আমরা একসঙ্গেই কাজ করবো। তার সঙ্গে কাজের প্রক্রিয়া নতুনভাবে সাজাতে হবে।

মিশা ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করে একটা বোঝাপড়া তৈরি হয়েছিল। আশা করছি তার সঙ্গেও কাজে করে একটা জায়গা তৈরি হবে। সবাই মিলেমিশেই কাজ করবো।

এদিকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুই বছর (২০২২-২৪ ইং) মেয়াদের এই নির্বাচনে এবার অংশ নেয় দুটি প্যানেল। একটি হচ্ছে

মিশা-জায়েদ আর অন্যটি হচ্ছে কাঞ্চন-নিপুণ। শিল্পী সমিতির এবারের নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ৪৫০। ভোট দিয়েছেন ৩৬৫ জন। এর মধ্যে ভোট বাতিল হয়েছে ১০টি।