ম্যাচে ভয়ঙ্কর ফাউলের শিকার, ছবি প্রকাশ ব্রাজিল ফরোয়ার্ডের

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে ব্রাজিলকে রুখে দিয়েছে ইকুয়েডর। ম্যাচে লাল কার্ড দেখেছেন দুই দলের দুই ফুটবলার। ফাউলের ছড়াছড়ি ছিল ম্যাচজুড়ে। দাপট ছিল ‘ভিএআর’ এ সিদ্ধান্ত বদলেরও।

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারী) বাংলাদেশ সময় ভোরে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় দুই হাজার ৮৫০ মিটার উঁচুতে ইকুয়েডরের রাজধানী কিটোয় ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়। উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে মোট ৩২টি ফাউল করেছেন দুই দলের ফুটবলাররা।

ম্যাচটিতে ব্রাজিলের পক্ষে আক্রমণভাগে ত্রাসই ছড়াচ্ছিলেন ফরোয়ার্ড মাতিয়াস কুনিয়া। সে কারণেই বেশ কয়েকটি ফাউল কয়েকটা হজম করতে হয়েছে তাকে। সেই সব ফাউলের ছবিই ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করেছেন তিনি।

২২ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড সবচেয়ে বড় ফাউলের শিকার হয়েছিলেন ইকুয়েডর গোলরক্ষক আলেহান্দ্রো ডমিঙ্গেজের কাছ থেকে। গোলমুখে প্রায় একাই এগিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি, তখনই আলেহান্দ্রো ডমিঙ্গেজ

এগিয়ে এসে করে বসলেন মারাত্মক এক ফাউল। যার ফলে কুনিয়ার কাঁধে আঁচড় লেগেছিল তার বুটের স্পাইকের। সেই ফাউলের ফলে অবশ্য লাল কার্ড দেখানো হয়েছিল ইকুয়েডর গোলরক্ষককে।

সেই ফাউলের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করেন কুনিয়া। যেখানে দেখা যাচ্ছে কমপক্ষে ছয় জায়গায় ছিলে গেছে তার কাঁধ। তবে ব্রাজিল ফরোয়ার্ড অবশ্য তার ভক্তদের জানিয়েছেন, ‘আমি ভালো আছি।’

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ব্রাজিল ১৪ ম্যাচে ১১ জয় ও তিন ড্রয়ে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। ১৫ ম্যাচে সাত জয় ও তিন ড্রয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে ইকুয়েডর।