জয় সহজ ছিল না, ছেলেরা দারুণ শিক্ষা পেল: রোহিত শর্মা

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ,এখন ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ভারত। তবে প্রথম টি-২০ ম্যাচে সহজ জয় পায়নি ভারত। টিম ইন্ডিয়ার নতুন ক্যাপ্টেন রোহিত, শর্মাও ম্যাচের শেষে তেমনটাই বলে গেলেন।

ম্যাচের শেষে রোহিত বলেন, যতটা সহজে ,এই ম্যাচটা আমরা জিতব ভেবেছিলাম ততটা সহজে আমরা কাজটা করতে পারিনি। এই ম্যাচটা কিন্তু ,ছেলেদের কাছে একটা দারুণ ,শিক্ষা দিয়ে গেল।

ওদেরকে বুঝতে হবে যে ম্যাচে পরিস্থিতি, অনুযায়ী কখন কী করতে হবে। সব, সময় শুধু পাওয়ার হিট করার বিষয়ে ভাবলেই চলবে না। মাঝেমধ্যে, সিঙ্গেল নেওয়ার, চেষ্টাও করে যেতে হবে।

তবে ক্যাপ্টেন হিসেবে প্রথম, ম্যাচ জেতায় খুশি রোহিত। তিনি বলেন, দল হিসেবে আমরা খুশি যে ছেলেরা ওই পরিস্থিতিতে ব্যাট করতে ,পেরেছে এবং খেলা শেষ করেছে। টেকনিক্যালি, এটা একটা ভালো

খেলা ছিল, কিছু প্লেয়ারকে এই সিরিজে ,পাচ্ছি না এবং তার জন্য কিছু নতুন, প্লেয়ারদের সামর্থ্যের দিকটা দেখে নেওয়ার সুযোগ, হচ্ছে এবং আমি মনে করি শেষ ৩-৪ ওভারে, আমরা যেভাবে এই

ম্যাচটাকে টেনে নিয়ে, গিয়েছি সেটা চমৎকার ছিল। একটা সময় মনে ,হচ্ছিল নিউজিল্যান্ড ১৮০ রানের বেশি রান তুলে দেবে। কিন্তু ,আমরা দুর্দান্ত বোলিং পারফর্ম্যান্সের, মধ্যে দিয়ে সেটা করতে দিইনি।

৪০ বলে ৬২ রানের ইনিংসের সুবাদে, ম্যাচের সেরার পুরস্কার পান ,সূর্যকুমার যাদব। ম্যাচের শেষে তিনি বলেন, এই ম্যাচে আলাদা কোনও, কিছু করার আমি চেষ্টা করিনি। যেভাবে নেটে ,ব্যাট করি সেটাই ম্যাচে

করার চেষ্টা করছিলাম। নেটে ,আমি প্রচুর চাপ নিয়েছি। অনুশীলনে আউট হয়ে ,গেলে সাজঘরে ফিরে সেই বিষয়টা নিয়ে ,ভাবতাম। আরও ভালো কী করে খেলা যায় সেটা নিয়ে, চিন্তা করতে থাকতাম।

আজ বল বেশ ভালো ভাবেই, ব্যাটে আসছিল। যদিও পরের দিকে একটু মন্থর হয়ে, গিয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ম্যাচ জিততে পেরে খুশি।

এদিকে, সিরিজে ১-০ ফলাফলে ,পিছিয়ে থাকলেও ভীষণ চিন্তিত নন কিউয়ি, অধিনায়ক টিম সাউদি। ম্যাচের শেষে তার মুখে, শোনা গেল দলকে নিয়ে ইতিবাচক কথা। শেষ ,ওভার পর্যন্ত কিউয়িরা যেভাবে

ম্যাচ গড়িয়ে নিয়ে গিয়েছিল সে, কথার বিশেষ উল্লেখ করেন সাউদি। ম্যাচের, শেষে সাউদি বলেন, আমরা সব সময় ফলাফলে,সঠিক দিকে আসতে চাই, আমরা আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলেছি।

পুরো ম্যাচটাই গভীরতার সঙ্গে খেলেছি। মার্ক চ্যাপম্যান, এর আগে খুব বেশি ক্রিকেট খেলেননি এবং ও যেভাবে খেলেছে তা দলের জন্য উপভোগ করার মতো ছিল।

তিনি আরও বলেন, এটা একটা ,সূক্ষ মার্জিনের খেলা। আমরা ভালো স্কোর টার্গেট দিয়েছিলাম। আমরা বোলিংয়ের শুরুতেই ভালো করতে চেয়েছিলাম।

মিচেল স্যান্টনার বল হাতে দারুণ পারফর্ম করেছে এবং আমাদের শেষ ওভার পর্যন্ত নিয়ে গিয়েছিল। আমাদের, জন্য এটাই একটা ইতিবাচক লক্ষণ।

নিউজিল্যান্ড প্রথম টি-২০ ম্যাচে হারলেও এক, বিশেষ রেকর্ড গড়লেন এক কিউয়ি ক্রিকেটার। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে দুইটি আলাদা দেশের ,হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করে

নজির গড়লেন মার্ক চ্যাপম্যান। জয়পুরে ভারতের, বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ ম্যাচে তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে কিউয়ি ব্যাটার চ্যাপম্যান করেন ৫৩ বলে ৬৩ রান।

এর আগে ২০১৫ সালে আবুধাবিতে ওমানের ,বিরুদ্ধে হংকংয়ের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন চ্যাপম্যান। সেই ম্যাচে তিনি ,করেছিলেন ৪১ বলে ৬৩ রানের

অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। চ্যাপম্যান ২০১৫ সালে হংকংয়ের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার পর ২০১৮ সাল থেকে তিনি নিউজিল্যান্ডের হয়ে খেলছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.