হরভজনকে খুঁজছেন শোয়েব আখতার

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে পাকিস্তানকে ‘ওয়াকওভার’ দিতে বলেছিলেন হরভজন…….

ক্রিকেট নিয়ে তাদের দু’জনের মাঠের লড়াই ছিল বেশ কয়েক বছর আগে। মাঠের লড়াই থেকে দু’জন অবসর নিলেও থামেনি মাঠের বাহিরের কথার লড়াই। ভারত-পাকিস্তান দুই দল মুখোমুখি হলেই বাকযুদ্ধে লেগে পড়েন পাকিস্তানি কিংবদন্তী পেসার শোয়েব আখতার ও ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিং।

এই যেমন আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই মুখোমুখি হয়েছে ভারত-পাকিস্তান। এই ম্যাচকে ঘিরেও বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়েছিলেন হরভজন ও শোয়েব।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগেই ভবিষ্যদ্বাণী দিয়েছিলেন হরভজন। ভারতের নির্মিত আলোচিত বিজ্ঞাপন ‘মওকা মওকা’র নতুন ভিডিও দেখে

হরভজন তার প্রতিক্রিয়ায় পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে নাজেহাল অবস্থা হবে পাকিস্তানের।

হরভজন বলেন, ‘আমি শোয়েবকে বলেছি, আমাদের বিরুদ্ধে খেলতে নামার কোনো মানেই হয় না। তোমরা একটা কাজ করতে পারো, সেটা হচ্ছে ওয়াকওভার দিয়ে দেও (খেলতে অস্বীকৃতি জানানো)।’

এই কথা বলার কারণ হিসেবে সেসময় শোয়েবকে হরভজন বলেন, ‘তোমরা খেলবে, আবার হারবে। সেটা তোমাদের হতাশ করবে। আমাদের দল অনেক শক্তিশালী। শোয়েব, আমি কোনো সুযোগই দেখছি না। আমরা তোমাদের স্রেফ উড়িয়ে দেব।’

হরভজনের সেই কথা কথাতেই থেকে গেছে। বাস্তবে আর পরিণত হয়নি। কারণ দুবাইয়ের মাটিতে ভারতকে লজ্জার হার উপহার দিয়েছে পাকিস্তান।

কোহলি-বুমরাহদের রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে বাবর-আফ্রিদিরা। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের বিপক্ষে ১০ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে পাকিস্তান।

এই ম্যাচের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় উল্লাসে ফেটে পড়ছে পাকিস্তানি সমর্থকরা। তাদের সঙ্গে গা ভাসিয়েছেন শোয়েব আখতারও। হরভজনের কথার মুখভাঙা জবাব দিতে যেনো এই জয়েরই অপেক্ষায় ছিলেন তিনি।

তাই তো ম্যাচ শেষে এক টুইটবার্তায় ভাজ্জিকে খুঁজছেন এই সাবেক গতিদানব। শোয়েব টুইটে লিখেছেন, কাহা হো ইয়ার হরভজন সিং? যদিও ভাজ্জি এখনও শোয়েবের টুইটের রিপ্লাই দেননি। ভারতের এমন লজ্জাজনক হারের পর এবার কি বলেন হরভজন সিং সেই অপেক্ষাতেই যেনো রয়েছেন পাকিস্তানি ক্রিকেট সমর্থকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *