মৌলভীবাজারে ঘোড়ার পিঠে বর, পালকিতে কনে

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় এবার ঘোড়ায় চড়ে পালকিতে কনে এনে আলোচনায় নবদম্পতি ফখরুল ইসলাম ও খাদিজাতুল কোবরা ইভা। বিয়ের দিনটি স্মরণীয় করে রাখতে ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে যাওয়ার ইচ্ছা ছিল ফখরুল ইসলামের।

ইচ্ছা ছিল বউ নিয়ে ফিরবেন পালকিতে। সেই ইচ্ছা পূরণ হয়েছে এবার।

লাল শেরওয়ানি পরে ঘোড়ায় চড়ে কনের বাড়ি গিয়ে নববধূকে নিয়ে ফিরেছেন পালকিতে করে। চিরায়ত গ্রামবাংলার হারানো ঐতিহ্য ঘোড়া ও পালকির ব্যবহার হয়েছে এই বিয়েতে, যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

বুধবার (২৩ অক্টোবর) রাতে শহরে হঠাৎ ঘোড়ায় সওয়ার করে নতুন বর সামনে এবং পেছনে পালকিতে চড়ে নববধূ যাচ্ছে, এমন দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হন শহরের বাসিন্দারা।

জানা যায়, কুলাউড়া পৌর শহরের দক্ষিণ বাজার এলাকার শাহি মঞ্জিলের বাসিন্দা হাজী শাহ মো. খাইরুল শামীম ও আফিয়া ইসলাম দম্পতির

ছেলে শাহ মো. ফখরুল ইসলাম শুভর সঙ্গে একই উপজেলার শরিফপুর ইউনিয়নের বাগজুর গ্রামের মো. আব্দুল কাইয়ূম ও সৈয়দুন নেছা দম্পতির মেয়ে খাদিজাতুল কোবরা ইভার বিয়ের আয়োজন করেন ২০ অক্টোবর। ওই দিন ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) থাকায় বর-কনে রাতেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন।

বর ফখরুল ইসলাম শুভ বলেন, বিয়ের দিনটিকে স্মরণ রাখতেই ঘোড়া-পালকিতে বিয়ে। শখের পাশাপাশি গ্রামীণ সংস্কৃতি ধরে রাখতেই ব্যতিক্রমী এ আয়োজন। যদিও চিরায়ত গ্রামবাংলার ঐহিত্য এখন বিলুপ্তির পথে।

হারানো ঐতিহ্যে জীবনের বিশেষ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে পেরে তিনি উচ্ছ্বসিত বলেও জানিয়েছেন। দাম্পত্য জীবনে যেন সুখী হয়, সে জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *