কারাগারে যেভাবে দিন কাটছে শাহরুখপুত্র আরিয়ানের

মা;দ;ক;কাণ্ডে গ্রে;;ফতার শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান এখন জেল হেফাজতে আছেন। বেশ কয়েকবার চেষ্টা করেও জামিন মেলেনি তার। বাবা কিং খান ভারতের প্রখ্যাত আইনজীবী সতীশ মানেশিন্ডেকে নিয়োগ দিয়েও ছেলেকে মুক্ত আকাশে আনতে পারেননি।

আপাতত জেলের রুদ্ধদ্বার কক্ষেই দিন কাটবে আরিয়ানের। বর্তমানে মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাকে। মুম্বাইয়ের এই হাইপ্রোফাইল জেলের ফার্স্ট ফ্লোরে স্পেশাল কোয়ারেন্টিন ব্যারাকে কছেন আরিয়ান।

প্রশ্ন উঠেছে – বাবার বিশাল বিত্ত বৈভব, প্রমোদতরীতে হৈ-হুল্লোর করে বেড়ানো, প্রাসাদ মান্নাতের আয়েস করা যুবক কীভাবে থাকবেন কারাগারের চার দেয়ালের ভেতরে?
স্টার কিড হিসেবে কারাগারে বাড়তি কোনো সুবিধা পাবেন কি আরিয়ান?

কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, তারকা সন্তান বলে কোনো রকম ‘বিশেষ সুবিধা’ পাচ্ছেন না আরিয়ান।

বাকি সাধারন হাজতবাসীর মতোই থাকবেন ‘বলিউড বাদশা’-র পুত্র। নিয়ম মেনে প্রতিদিন সকাল ৬ টায় উঠিয়ে দেয়া হয় প্রত্যেক অভিযুক্তকারীকে। এই নিয়মের বাইরে নয় শাহরুখপুত্রও।

সকাল এর খাবার দেয়া হবে ৭টার সময়। বেলা গড়িয়ে যখন ঘড়ির কাটা ১১ টায় তখন দেওয়া হবে দুপুরের খাবার। দুপুর এবং রাতের খাবারের তালিকায় থাকবে রুটি, তরকারি, ডাল এবং ভাত। এর বাইরে আর কিছুই দেওয়া হবে না হাজতবাসীদের। সন্ধ্যা ৬ টার মধ্যেই দিয়ে দেয়া হয় রাতের খাবার।

খাবার শেষে কারাবাসীদের জেলের ভিতর হাঁটাচলার সুযোগ দেওয়া হলেও আপাতত আরিয়ান এবং তাঁর সঙ্গীদের ক্ষেত্রে এখনও সেই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। তিন থেকে পাঁচ দিন পর্যন্ত নিভৃতবাসে থাকার পর জেলের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ঘোরাফেরা করতে পারবেন তাঁরা।

নির্দিষ্ট খাবারের বাইরে ক্যান্টিন থেকে আরও খাবার চাইলে নিতে পারবে তবে সেক্ষেত্রে আরিয়ান এবং তাঁর সঙ্গীদের টাকা দিতে হবে। মানি অর্ডারের মাধ্যমে সেই টাকা আনানো যেতে পারে।

রাজপ্রাসাধসম বাড়ি মান্নাত ছেড়ে এভাবেই হাজতে সাধারণ জীবন কাটাবেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান। গত ২ অক্টোবর কার্ডেলিয়া নামেরপ্রমোদ তরীর পার্টি যেনো তার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *